ভিড়যুক্ত ছোট পরিসরে বসে খাওয়ার জায়গা অযথা আটকে রাখবেন না। সচেতন হোন এবং অন্যকেও সচেতন করুন|

বসে খাওয়ার জায়গায় অযথা চেয়ার আটকে রাখবেন না

Last Updated on



যাঁরা ( আমার ধারণা অনেকেই ) সাউথসিটি স্পেন্সর গিয়েছেন , তাঁরা অবশ্যই সেখান থেকে বেরোবার পথে একটি ছোট ফুড কোর্ট দেখেছেন | হয়তো অনেকেই সেখানে বসে খেয়েছেন -ও |



আমরা সাধারণত সেখানে গেলে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনেই বেরিয়ে আসি | খাওয়ার ইচ্ছে থাকলে অন্য কোনো খাবার জায়গায় অথবা সাউথসিটি মেইন ফুড কোর্ট-এ চলে যাই |

আজও আমরা কয়েকটি জিনিস কিনতে গিয়েছিলাম সেখানে | আর কেনাকাটার সময় কয়েকটি জিনিস আমার ছেলের জন্য পছন্দ হয় | সামনেই আমার ছেলের জন্মদিন | তাই ওইদিন সেইসব জিনিস আমরা ছেলেকে উপহার দিয়ে ওকে চমক দেব ভেবে অন্য সবকিছু কেনার পরে আমি ছেলেকে নিয়ে ফুডকোর্টের দিকে চলে আসি, আর ওর বাবা সেইসব জিনিস কিনতে চলে যায় |




আমি ছেলেকে নিয়ে সেই সময় কাটাবার জন্যে ওর প্রিয় চিকেন মোমো অর্ডার দিয়ে ওর জন্য একটা চেয়ার খুঁজতে থাকি, কিন্তু তখন কোনো চেয়ার-ই ফাঁকা নেই | হয়তো কোথাও একজন বাচ্চা খাচ্ছে আর তাকে ঘিরে তার পরিবারের আরো তিন চার জন বসে আছেন | কোথাও কোনো দলের খাওয়া শেষ হয়ে গেছে কিন্তু তাদের গল্প শেষ হয়নি | আর বেশিরভাগ চেয়ারে ব্যাগ রেখে কেউ আগলে রেখেছেন তার সাথীর জন্যে | বাধ্য হয়ে ছেলেকে একটি টেবিলের কাছে দাঁড় করিয়ে খাওয়াতে শুরু করলাম | ছোট মানুষ অনেক্ষন দাড়িয়ে খেতে ওর অসুবিধা হচ্ছিলো বুঝতে পারছিলাম | মা তো, তাই খুব খারাপ লাগছিলো আমার | ওখানকার ফুড কাউন্টারে গিয়ে আমার সমস্যার কথা বলায় তাঁরাও তাদের সমস্যার কথা জানালেন যে, সব বুঝেও তাঁরা অপারক | কারণ তাঁরা যদি কাউকে কিছু বলতে যান তবে হয়তো উল্টে তাদের নামেই রিপোর্ট হবে | সেখানে দাঁড়িয়ে থাকা এক বাবা বললেন, তিনিও এইরকম সমস্যায় পরে তাঁর সন্তানকেও এইভাবে দাঁড় করিয়ে খাওয়াতে বাধ্য হয়েছেন | আরো কয়েকজন সেখানে এসে জড়ো হলেন | তাঁরাও একই সমস্যার কথা বলছিলেন | আমাদের কথা-বার্তা চলাকালীন বেশ কয়েকটি চেয়ার ফাঁকা হয়ে আমার ছেলের বসার জন্যে এগিয়ে এলো | অন্তত যাদের চক্ষু-লজ্জা ছিল না তাদের কর্ণ-লজ্জার বোধহয় উদয় হয়েছিল |

আমার সকল বন্ধুদের কাছে অনুরোধ – বসে গল্প করার অনেক জায়গা আছে, দয়া করে এইরকম ভিড় ও ছোট পরিসরে বসে খাওয়ার জায়গায় অযথা চেয়ার আটকে রাখবেন না | মনে রাখবেন চেয়ার বসার জন্য, আপনার ব্যাগ রাখবার জন্য নয় | আপনার কারণে কোনো বৃদ্ধ অথবা বাচ্চাকে দাঁড়িয়ে থাকতে বাধ্য করবেন না | একটু মানবিক ও সচেতন হোন এবং অন্যকেও সচেতন করুন |





Disclaimer: The views, opinions and positions (including content in any form) expressed within this post are those of the author alone. The accuracy, completeness and validity of any statements made within this article are not guaranteed. We accept no liability for any errors, omissions or representations. The responsibility for intellectual property rights of this content rests with the author and any liability with regards to infringement of intellectual property rights remains with him/her.